ঢাকা     শুক্রবার   ১৯ জুলাই ২০২৪ ||  শ্রাবণ ৪ ১৪৩১

পাবনা-১ 

স্বতন্ত্র প্রার্থী সাইয়িদের প্রচারণায় বাধা দেওয়ার অভিযোগ

পাবনা প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৭:০৬, ১৯ ডিসেম্বর ২০২৩   আপডেট: ১৭:২৯, ১৯ ডিসেম্বর ২০২৩
স্বতন্ত্র প্রার্থী সাইয়িদের প্রচারণায় বাধা দেওয়ার অভিযোগ

পাবনা-১ আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী অধ্যাপক আবু সাইয়িদের নির্বাচনী প্রচারণায় বাধা ও অবরুদ্ধ করে রাখার অভিযোগ উঠেছে। আবু সাইয়িদ এ ঘটনার জন্য আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের দায়ী করেছেন। মঙ্গলবার (১৯ ডিসেম্বর) দুপুরে পাবনার সাঁথিয়া উপজেলার বোয়াইলমারী বাজার এলাকায় ঘটনাটি ঘটে। পরে সেখানে পুলিশ ও আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য মোতায়েন করা হয়।

অধ্যাপক আবু সাইয়িদ অভিযোগ করে জানান, আজ (মঙ্গলবার) দুপুর ১২টার দিকে নিজ বাড়ি থেকে সাঁথিয়া উপজেলায় নির্বাচনী প্রচারণার উদ্দেশ্যে কয়েকটি গাড়ি নিয়ে বের হন। বোয়াইলমারী বাজার এলাকায় জনসংযোগ চলাকায় স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা এসে স্লোগান দিতে শুরু করলে পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। এসময় সাঁথিয়া পৌর মেয়র মাহবুবুল আলম বাচ্চু, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান সোহেল রানা খোকন ও বেড়া উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মেজবাহ মোল্লার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা অধ্যাপক আবু সাইয়িদের প্রচারণায় বাধা দিয়ে তাকে চলে যাওয়ার জন্য স্লোগান দিতে থাকেন।

পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে বিপুল পরিমাণ পুলিশ ও ডিবি পুলিশ মোতায়েন করা হয়। এসময় আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা উভয় গ্রুপকে ঘিরে রাখে। দুপুর সাড়ে ৩টার দিকে সাঁথিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও সহকারী রিটার্নিং অফিসার আল্পনা পারভীন ঘটনাস্থলে এসে উভয় দলকে সরিয়ে দিলে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়।

অধ্যাপক আবু সাঈদের প্রধান নির্বাচনী এজেন্ট ও বেড়া পৌরসভার সাবেক মেয়র আব্দুল বাতেন বলেন, সরকার ও প্রধানমন্ত্রী নির্বাচন নিরপেক্ষ করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। কিন্তু আপনারা আজকে দেখলেন কিভাবে আমাদের অবরুদ্ধ করে রাখা হয়েছে। এটা কি নির্বাচনে স্বাভাবিক পরিবেশ বা নিরপেক্ষ পরিবেশ বলে?

সাঁথিয়া উপজেলা ভাইস-চেয়ারম্যান সোহেল রানা খোকন বলেন, নির্বাচনের প্রচারণায় বাধা দেয়ার অভিযোগ সত্য নয়। আজকে নৌকার প্রার্থী শামসুল হক টুকুর নির্বাচনী প্রোগ্রাম ছিল। সেই প্রোগ্রামকে বাধাগ্রস্ত করতেই অধ্যাপক আবু সাঈদ আজকে এই এলাকায় এসেছিলেন। তারাই আমাদের মিছিলের সামনে গাড়ি রেখে প্রচারণার কাজ বাধাগ্রস্ত করেছিল। 

এ বিষয়ে জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা মু. আসাদুজ্জামান মুঠোফোনে জানান, আমি বিষয়টি শুনেছি। নির্বাচনী প্রচারণায় বাধা দেয়ার অধিকার কারো নেই। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে আইনগত ব্যবস্থা নিতে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

প্রসঙ্গত, পাবনা-১ আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী আবু সাইয়িদ ‘ট্রাক’ প্রতীক নিয়ে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

শাহীন/মাসুদ

ঘটনাপ্রবাহ

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়