ঢাকা     বৃহস্পতিবার   ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০ ||  আশ্বিন ৯ ১৪২৭ ||  ০৬ সফর ১৪৪২

টিকে থাকতে চাই নানামুখী দক্ষতা

জহির রায়হান || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৫:১১, ৬ আগস্ট ২০২০   আপডেট: ১০:৩৯, ২৫ আগস্ট ২০২০
টিকে থাকতে চাই নানামুখী দক্ষতা

করোনাভাইরাস যেমন অনেক কিছু কেড়ে নিয়েছে, তেমনি আমাদের অনেক কিছু শিখিয়েও দিচ্ছে। অনেকেই কর্ম হারাচ্ছেন। অনেক তরুণ আবার অনিশ্চিত কর্মজীবনে প্রবেশ করছেন। আগামীর পৃথিবীতে মাথা তুলে দাঁড়াতে হলে নানাবিধ চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হতে হবে। আয়ত্ত করতে হবে নানামুখী জ্ঞান ও দক্ষতা। 

এমনকিছু দক্ষতা রয়েছে, যার শক্তিতে আমরা আগামী দিনগুলোর চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করার সাহস পাবো। নিজেকে দক্ষ জনশক্তি হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে পারবো।

যোগাযোগ দক্ষতা: কার্যকর যোগাযোগ প্রতিষ্ঠা করতে পারার বিষয়টিকে বিশেষজ্ঞরা সবচেয়ে বড় দক্ষতা হিসেবে মনে করেন। যোগাযোগ দক্ষতা যেকোনো মানুষকে পেশাগত জীবন থেকে শুরু করে সামাজিক এবং ব্যক্তিগত জীবনে অন্যদের চাইতে এগিয়ে রাখে। যোগাযোগ দক্ষতা মানুষকে আত্মবিশ্বাসী হতে সাহায্য করে। খুব দ্রুত কারোর সঙ্গে মিশে যেতে পারা, ব্যক্তিগত সম্পর্কের উন্নয়ন ঘটানো, অন্যকে বুঝতে পারা এবং নিজেকে অন্যের কাছে যথাযথভাবে উপস্থাপন করতে পারাই এর উদ্দেশ্য। এগুলোই যোগাযোগ দক্ষতা।

নেতৃত্বের দক্ষতা: ‘কাজ করিয়ে নেওয়ার ক্ষমতাকে নেতৃত্ব বলা হয়’ এমন একটি ভুল ধারণা আমাদের অনেকেরই আছে। আসলে নেতৃত্ব হচ্ছে একজন মানুষের সেই সক্ষমতা, যা দিয়ে কোনো একটি নির্দিষ্ট লক্ষ্য অর্জনে সমাজের মানুষকে বা কোনো দলকে অনুপ্রেরণা ও দিক নির্দেশনা দিয়ে পরিচালিত করতে পারা। এই গুণ যার থাকে, তিনি অনেকের চেয়ে এগিয়ে থাকেন।

প্রযুক্তিগত দক্ষতা: আধুনিক যুগে টিকে থাকতে চাইলে প্রযুক্তিগত দক্ষতার কোনো বিকল্প নেই। প্রযুক্তির ব্যবহার জানা যে কতটা জরুরি, তা করোনাভাইরাসের এই মহামারিকালে আমরা হাড়ে হাড়ে টের পাচ্ছি। প্রযুক্তিতে পিছিয়ে থাকলে খুব বেশি দূর এগিয়ে যাওয়া যাবে না। প্রযুক্তিতে দক্ষ জনশক্তি সবসময় সব পরিস্থিতিতে অগ্রাধিকার পায়। এজন্য প্রযুক্তিগত দক্ষতা থাকা আবশ্যক।

সমস্যা সমাধানের দক্ষতা: কোনো কোনো সমস্যা সমাধানের সাধারণত একাধিক পথ থাকতে পারে। কোনো সমস্যার সুন্দর সমাধান করতে পারাই হচ্ছে সমস্যা সমাধানের দক্ষতা। কোনো সংকটকালে সমস্যা সমাধান করতে পারাও বড় অর্জন।

শিখতে পারার ক্ষমতা: সব ধরনের পরিস্থিতিতে শিখতে পারার ক্ষমতা এবং শেখার মানসিকতা খুবই গুরুত্বপূর্ণ দক্ষতা। আগামীর বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলতে হলে প্রতিনিয়ত শিখতে হবে। প্রতিনিয়ত নতুন পরিবেশের সঙ্গে খাপ খাইয়ে নেওয়ার ক্ষমতা থাকতে হবে। যে যত বেশি শিখতে পারবে, সে তত বেশি দক্ষ বলে পরিগণিত হবে।

 

লেখক: শিক্ষার্থী, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়।

 

কুবি/মাহফুজ/মাহি

রাইজিং বিডি

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়