RisingBD Online Bangla News Portal

ঢাকা     সোমবার   ৩০ নভেম্বর ২০২০ ||  অগ্রাহায়ণ ১৬ ১৪২৭ ||  ১৩ রবিউস সানি ১৪৪২

ব্র্যান্ড মার্কেটিংয়ের কৌশল জানালেন মুনতাসির মামুন

গোলাম মোর্শেদ সীমান্ত || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৩:৪২, ২৬ অক্টোবর ২০২০   আপডেট: ১৪:০৬, ২৬ অক্টোবর ২০২০
ব্র্যান্ড মার্কেটিংয়ের কৌশল জানালেন মুনতাসির মামুন

মুনতাসির মামুনের পেশাগত জীবন শুরু হয় প্রাণ-আরএফএল গ্রুপে কাজের মাধ্যমে। বর্তমানে তিনি আকিজ ফুড অ্যান্ড বেভারেজে অ্যাসিস্ট্যান্ট ব্র্যান্ড ম্যানেজার হিসেবে কর্মরত আছেন। তার পেশাগত জীবন ও ব্র্যান্ড মার্কেটিং নিয়ে জানার চেষ্টা করেছেন গোলাম মোর্শেদ সীমান্ত। 

সীমান্ত: কেমন আছেন?

মুনতাসির মামুন: ভালো আছি।

সীমান্ত: আপনার পেশাগত জীবন সর্ম্পকে জানতে চাই।

মুনতাসির মামুন: আমি আমেরিকান ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ (AIUB) থেকে বিবিএ ও এমবিএ শেষ করে বাংলাদেশের অন্যতম বৃহৎ শিল্পপ্রতিষ্ঠান প্রাণ-আরএফএল কোম্পানিতে যোগদান করি। এরপর আমি দেশের আরেক বৃহত্তম বেভারেজ কোম্পানি ট্রান্সকম বেভারেজেস লিমিটেডে যোগদান করি। সেখান থেকে দেশের ফুড ও বেভারেজ জগতের অন্যতম জায়ান্ট আকিজ ফুড অ্যান্ড বেভারেজ লিমিটেডের ব্র্যান্ড মার্কেটিং ডিপার্টমেন্টে কর্মরত আছি।

সীমান্ত: একটা পণ্যকে ব্র্যান্ড হিসেবে গড়ে তোলার মূল হাতিয়ার কী?

মুনতাসির মামুন: আমি মনে করি, একটি পণ্যকে ব্র্যান্ড হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে ৪টি বিষয়কে প্রাধান্য দিতে হবে। পণ্যের গুণগত মান, ভোক্তার চাহিদা পূরণ, নিরবিচ্ছিন্ন ডিস্ট্রিবিউশন ও সঠিক মার্কেটিং প্ল্যান। এই চারটি বিষয়কে প্রাধান্য দিয়ে আপনাকে কাজ করতে হবে। পাশাপাশি কনজিউমারের টেস্ট, চাহিদা ও পণ্যের উপর রিসার্চ চালিয়ে যেতে হবে। কমিউনিকেশন স্ট্রাটেজি ও সেলস স্ট্রাটেজির উপর গুরুত্ব দিতে হবে। এই কাজগুলো ভালোভাবে করতে পারলে আমি মনে করি, একটি পণ্যকে ব্র্যান্ড হিসেবে গড়ে তোলা সহজ হবে।

সীমান্ত: যারা ব্র্যান্ড মার্কেটিং সেক্টরে ক্যারিয়ার গড়তে চায়, তাদের করণীয় কী? 

মুনতাসির মামুন: ব্র্যান্ড মার্কেটিং সেক্টরে আসার জন্য প্রথমে কনজিউমারকে নিয়ে রিসার্চ করতে হবে। এছাড়া, ইভেন্ট, ডিজিটাল মার্কেটিং, প্রোডাক্ট ডেভেলপমেন্ট, ডিস্ট্রিবিউশন চ্যানেল সম্পর্কে ধারণা রাখতে হবে। এই বিষয়গুলো সম্পর্কে ধারণা থাকলে ব্র্যান্ড মার্কেটিং সেক্টরে ক্যারিয়ার গড়া সহজ বলে আমার মনে হয়। 

সীমান্ত: একজন ফ্রেশারের মধ্যে কি কি দক্ষতা থাকলে চাকরিদাতাদের কাছে এগিয়ে থাকবে বলে আপনি মনে করেন?
মুনতাসির মামুন: আমি মনে করি, একজন ফ্রেশারের মধ্যে ইংরেজিতে বলা ও লেখার দক্ষতা থাকতে হবে। যেকোনো বিষয় সহজ করে উপস্থাপন করার দক্ষতা থাকতে হবে। কম্পিউটার চালানোর দক্ষতা থাকতে হবে অবশ্যই। কমিউনিকেশন দক্ষতা থাকা জরুরি। এসব দক্ষতা থাকলে চাকরিদাতাদের কাছে এগিয়ে থাকবে একজন ফ্রেশার। 

সীমান্ত: ব্র্যান্ড মার্কেটিং সেক্টরে আপনার উল্লেখযোগ্য কাজগুলোর সম্পর্কে যদি একটু বলতেন। 

মুনতাসির মামুন: প্রাণ-আরএফএল গ্রুপে আমি মালয়েশিয়া, সিঙ্গাপুর ও ব্রুনাইয়ের এক্সপোর্ট ব্র্যান্ডগুলো দেখতাম। তখনকার সময় উল্লেখযোগ্য ক্যাম্পেইন ছিল পাওয়ার ড্রিঙ্কস কনজিউমার প্রমোশন ক্যাম্পইন, প্রাণ স্পাইস পাউডার ঈদ ক্যাম্পইন উল্লেখযোগ্য। এছাড়া ট্রান্সকম বেভারেজেস লিমিটেডের উল্লেখযোগ্য ক্যাম্পেইনগুলোর মধ্যে রয়েছে পেপসি এক্সেল নতুন বোতল লঞ্চিং, পেপসি ব্ল্যাক লঞ্চিং, পেপসি ও লেইস কনজিউমার প্রমোশন, আকিজ ফুড অ্যান্ড বেভারেজ লিমিটেডের জনপ্রিয় ব্র্যান্ড স্পিডের উল্লেখযোগ্য ক্যাম্পইনগুলোর স্পিড থিমেটিক ক্যাম্পেইন, স্পিড রোড অ্যান্ড সেফটি ক্যাম্পেইন, স্পিড রেকর্ড মাস্টার ক্যাম্পেইন এবং স্পিড বাংলা লিখি বাংলায় ক্যাম্পেইন অন্যতম। 

স্পিড বাংলা লিখি বাংলায় ক্যাম্পেইনটি গত বছর বাংলাদেশ ব্র্যান্ড ফোরাম আয়োজিত কমিউনিকেশন অ্যাওয়ার্ড ও ডিজিটাল মাৰ্কেটিং অ্যাওয়ার্ডে ডিজিটাল ক্যাটাগরিতে পুরস্কার পেয়েছে। এছাড়া দেশের জনপ্রিয় ব্র্যান্ড স্পিড পরপর দুইবার বেস্ট ব্র্যান্ড অ্যাওয়ার্ড পেয়েছে।

ঢাকা/মাহি

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়