ঢাকা     মঙ্গলবার   ০৫ জুলাই ২০২২ ||  আষাঢ় ২১ ১৪২৯ ||  ০৫ জিলহজ ১৪৪৩

রবীন্দ্র সৃজনকলা বিশ্ববিদ্যালয়ে চলছে পাঠদানের প্রস্তুতি  

ক্যাম্পাস ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৪:১৩, ১১ ফেব্রুয়ারি ২০২১  
রবীন্দ্র সৃজনকলা বিশ্ববিদ্যালয়ে চলছে পাঠদানের প্রস্তুতি  

‘জ্ঞান-কর্ম-অনুরাগ’ এই তিন মূলমন্ত্র নিয়ে নতুন বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় ‘রবীন্দ্র সৃজনকলা বিশ্ববিদ্যালয়’-এর শিক্ষাকার্যক্রম শুরুর প্রস্তুতি চলছে। কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের শিক্ষাচিন্তা ও দর্শনের মূলমন্ত্র নিয়ে প্রতিষ্ঠিত হয় বিশ্ববিদ্যালয়টি।  

রবীন্দ্র সৃজনকলা বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রাস্টি বোর্ডের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ছিলেন জাতীয় অধ্যাপক ড. আনিসুজ্জামান। বাংলাদেশ সরকারের শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি) কর্তৃক অনুমোদিত একটি বিশ্ববিদ্যালয়।

বৈশিষ্ট্যের দিক থেকে এই বিশ্ববিদ্যালয় সম্পূর্ণ স্বতন্ত্র। সমাজ-সংস্কার, শিক্ষাচিন্তা, ব্যবস্থাপনা-ভাবনা, সংস্কৃতিচর্চা ও নানা উদ্ভাবনী কর্মকাণ্ডে নোবেলবিজয়ী রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের যে জীবনদৃষ্টি ও কর্মপদ্ধতি তারই আলোকে এই বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষাকার্যক্রম পরিচালনা করা হবে।

ইউজিসি অনুমোদিত বিশ্ববিদ্যালয়ে থাকছে তিনটি অনুষদ। পরিবেশনকলা অনুষদের অধীন সংগীত ও নাট্যকলা। নকশা এবং উদ্ভাবন অনুষদের অধীনে ফ্যাশন ডিজাইন। ব্যবসাবিদ্যা অনুষদের অধীনে ব্যবসায় প্রশাসন (প্রোগ্রামসমূহ- ব্যবস্থাপনা, মার্কেটিং, ফাইন্যান্স, হিসাববিজ্ঞান)। সবগুলো বিষয়য়ে চার বছর মেয়াদী। 

শিক্ষাকার্যক্রম শুরুর লক্ষ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রাস্টি বোর্ডের সচিব ও সমন্বয়কারী ট্রাস্টি রবিন খানের সভাপতিত্বে এক সমন্বয় সভার আয়োজন করা হয়। 

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক সৈয়দ মোহাম্মদ শাহেদ ও রেজিস্ট্রার মো. আলতাফ হোসেন এই সভায় উপস্থিত ছিলেন। 

রবিন খান বলেন, ‘রবীন্দ্র সৃজনকলা বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষাকার্যক্রম এমনভাবে পরিচালিত হবে, যাতে শিক্ষার্থীরা পরস্পরের সংযোগের মাধ্যমে নিজ নিজ শিল্পের কর্মবাস্তবতায় প্রসার ঘটাতে পারে।’

শিক্ষাকার্যক্রম পরিচালনার বিষয়ে উপাচার্য অধ্যাপক সৈয়দ মোহাম্মদ শাহেদ বলেন, ‘রবীন্দ্র সৃজনকলা বিশ্ববিদ্যালয় গতানুগতিকতার বাইরে গিয়ে বিদ্বান ব্যক্তিদের অঙ্গীকার ও গভীর অভিনিবেশের মাধ্যমে পাঠ্যক্রম সাজিয়ে শিক্ষাদানের চেষ্টা করবে।

ঢাকা/রিয়াদ/মাহি 

সম্পর্কিত বিষয়:

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়