ঢাকা     সোমবার   ০৪ মার্চ ২০২৪ ||  ফাল্গুন ২০ ১৪৩০

বগুড়ায় ঢিলেঢালা হরতাল পালন

বগুড়া প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৮:২০, ১৯ নভেম্বর ২০২৩  
বগুড়ায় ঢিলেঢালা হরতাল পালন

দ্বাদশ জাতীয় সংসদের ঘোষিত তফসিল প্রত্যাখ্যান করে সারা দেশে ডাকা বিএনপির ৪৮ হরতাল কর্মসূচি বগুড়ায় ঢিলেঢালাভাবে পালিত হচ্ছে। হরতালের প্রথম দিন রোববার (১৯ নভেম্বর) সকাল থেকে শহরের পাড়ামহল্লায় দোকানপাট যথারীতি খোলা হয়। এ ছাড়া সকালের দিকে যান চলাচল কিছুটা কম থাকলেও বেলার বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে স্বাভাবিকে চলে আসে। শহরের সবগুলো রাস্তায় রিকশা, ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা চলাচল করে। 

বগুড়া শহরের প্রাণকেন্দ্র সাতমাথায় যানবাহনের চাপ ছিল। তবে শহরের ভেতর মার্কেট এবং বড় ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানগুলো খোলা হয়নি। দূরপাল্লার যানবাহন বগুড়া থেকে ছেড়ে যায়নি। সকাল থেকে বেলা ১২টা পর্যন্ত শহরের বনানী, মাটিডালী, তিনমাথা, সাতমাথা এলাকা ঘুরে এমন চিত্র দেখা গেছে। 

এদিকে হরতালের প্রতিবাদে বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতা-কর্মীরা মিছিল ও শান্তি সমাবেশ করেছে শহরের প্রাণকেন্দ্র সাতমাথায়। জেলা আওয়ামী লীগের হরতাল বিরোধী মিছিলে শত শত নেতাকর্মী অংশ নেয়। তারা দলীয় কার্যালয় থেকে তাদের মিছিল বের করে শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণের পর আবারও সাতমাথায় ফিরে আসে। 

এদিকে, সকাল ৭টার দিকে শহরের কলোনী এলাকায় জামায়াতে ইসলামী বগুড়া শহর শাখার আমির অধ্যক্ষ আবিদুর রহমান সোহেলের নেতৃত্বে বিক্ষোভ মিছিল করে। এতে জামায়াত-শিবিরের কয়েকশত নেতাকর্মী অংশ নেয়। 

এরপর শহরে কানছগাড়ী এলাকায় হরতালের সমর্থনে জেলা বিএনপি, ছাত্রদলের নেতা-কর্মীরা অবস্থান নেন। সেখানে চারটি গাড়ি ভাঙচুর করা হয়।

শনিবার দিবাগত রাত ৩টায় ঘোড়াধাপ বন্দরে দাঁড়িয়ে থাকা ট্রাকে আগুন ধরিয়ে দেয় দুর্বৃত্তরা। পরে গ্রামবাসীরা এসে পানি ঢেলে আগুন নেভান। ট্রাকের মালিক মো. করিম জানান, রাতে ট্রাক পার্কিং করে বাড়িতে ঘুমাতে যান। গ্রামবাসীর মাধ্যমে খবর পেয়ে এসে দেখেন, ট্রাকে আগুন দাউদাউ করে জ্বলছে। স্থানীয়দের সহযোগিতায় আগুন নেভানো হয়। এতে আগুনে ট্রাকের কেবিন ও ইঞ্জিন ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। 

ট্রাকে আগুন দেওয়ার সত্যতা জানান বগুড়া সদর থানা পুলিশের এসআই তয়ন কুমার মন্ডল। তিনি জানান, ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে। এই বিষয়ে আইনগত পদক্ষেপ নেওয়া হবে৷

বগুড়ার বাসা মিনিবাস ও কোচ পরিবহন মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম বলেন, ঢাকাগামী বা দূরপাল্লার যাত্রীবাহী বাস বগুড়া থেকে ছেড়ে যায়নি। সন্ধ্যায় ছাড়বে। তবে আভ্যন্তরীণ রূটে বাস চলাচল করছে। নওগাঁ-বগুড়া, নাটোর-বগুড়া, জয়পুরহাট-বগুড়াসহ আরও বেশ কয়েকটি রুটে সকাল থেকে বাস চলাচল করছে। তবে বাসের সংখ্যা কম। 

বাস চলাচলে প্রতিবন্ধকতার খবর পেয়েছেন কি-না জানতে চাইলে তিনি বলেন, আজকে এখন পর্যন্ত তেমন খবর পাওয়া যায়নি। তবে গত রাত আড়াইটায় শাহাজাহানপুরের ফটকি ব্রিজ এলাকায় আমার শাহ ফতেহ বাস ভাঙচুর করা হয়েছে। দুর্বৃত্তদের ছোড়া ইটপাটকেলে গাড়ির সামনে গ্লাস ভেঙে গেছে।
 

এনাম/বকুল

সম্পর্কিত বিষয়:

ঘটনাপ্রবাহ

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়