ঢাকা     বুধবার   ১৯ জুন ২০২৪ ||  আষাঢ় ৫ ১৪৩১

ওয়ালটন-কালবেলা বিশ্বকাপ ফুটবল কুইজের ড্র অনুষ্ঠিত

ক্রীড়া ডেস্ক || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ২১:৪৬, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩   আপডেট: ২১:৪৭, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
ওয়ালটন-কালবেলা বিশ্বকাপ ফুটবল কুইজের ড্র অনুষ্ঠিত

নভেম্বরের মাঝামাঝি সময়ে নতুন আঙ্গিকে বাজারে আসে দৈনিক কালবেলা। এক মাস যেতেই কাতার বিশ্বকাপ-২০২২ শুরু হলে পাঠকদের জন্য বিশেষ কুইজ, কুইজ প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। সে আয়োজনে পৃষ্ঠপোষকতার দায়িত্বে ছিল দেশের শীর্ষস্থানীয় ইলেকট্রনিক ব্র্যান্ড ‘ওয়ালটন গ্রুপ’।

পুরো বিশ্বকাপে দুই ভাগে কুইজের আয়োজন করে কালবেলা। দুই পর্বে ১৮টি পুরস্কারের ব্যবস্থা রাখা হয়। গতকাল সোমবার (২০ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩) দৈনিক কালবেলা অফিসে পাঠকদের পাঠানো বিপুল সংখ্যক কুইজের কুপন থেকে ড্রয়ের মাধ্যমে বিজয়ীদের নির্বাচিত করা হয়।

সে সময় উপস্থিত ছিলেন উপ-সম্পাদক দীপঙ্কর লাহিড়ী, ডিরেক্টর (সেলস্, মার্কেটিং, অপারেশন) মো. আহসানুজ্জামান রিমন, সিটি এডিটর রাজু আহমেদ, স্পোর্টস এডিটর রানা হাসান ও পৃষ্ঠপোষক প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে ছিলেন ডেপুটি এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর (পিআর, মিডিয়া অ্যান্ড ব্র্যান্ডিং) মো. মোস্তাফিজুর রহমান, সিনিয়ার প্রিন্সিপাল অফিসার মো. পারভেজ, অ্যাসিসটেন্ট প্রিন্সিপাল অফিসার আরজু হোসাইন।

প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাবেক ফুটবলার ছাইদ হাসান কানন, সাফজয়ী দলের দুই নারী ফুটবলার কৃষ্ণা রানী সরকার, সানজিদা আক্তার ও সহকারী কোচ মাহবুবুর রহমান লিটু।

অনুষ্ঠানে কালবেলার পক্ষ থেকে দীপঙ্কর লাহিড়ী বলেন, ‘ফুটবল কূটনীতিতে আর্জেন্টিনার সঙ্গে বাংলাদেশের একটা নতুন সম্পর্কের সম্ভাবনা জেগেছে। এটা এ বিশ্বকাপে আমাদের উন্মাদনার বড় পাওয়া। ওয়ালটন সব জায়গায় সহযোগিতা করে। এখানেও তারা আমাদের সহযোগিতা করায় তাদের প্রতি ধন্যবাদ।’

পৃষ্ঠপোষক প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ‘কালবেলা নতুন পত্রিকা হলেও এখানে যারা কাজ করেন, সবাই এ পেশায় অভিজ্ঞ। কালবেলার প্রথম দিন থেকেই আমরা সঙ্গে থাকতে চেয়েছিলাম, সেভাবেই শুরু করেছি। হ্যাঁ, আমি জানতাম এমন কিছু হবে, যদিও নতুন পত্রিকায় এমন হতে দেখা যায় না। তবে আমাদের বিশ্বাস ছিল কালবেলার প্রতি। আমরা আমাদের জায়গা থেকেই সর্বোচ্চ দিয়ে কালবেলার পাশে থাকব। বিজয়ীদের অভিনন্দন জানাচ্ছি।’

ড্র অনুষ্ঠানে সাবেক ফুটবলার কানন বলেন, ‘কালবেলাকে ধন্যবাদ এমন আয়োজন করার জন্য। আমি ধন্যবাদ দিই ওয়ালটনকে, তারা স্পোর্টসের সঙ্গে সব সময়ই আছে। স্পোর্টস জাগ্রত হয়েছে ওয়ালটনের মাধ্যমে, তারা সব ক্ষেত্রে পৃষ্ঠপোষকতা করেছে। প্রত্যাশা করি, আরও ভালোভাবে তারা এগিয়ে আসবে।’

কোচ লিটু বলেন, ‘কালবেলাকে ধন্যবাদ আমাদের আমন্ত্রণ জানানোর জন্য, সঙ্গে পৃষ্ঠপোষক ওয়ালটনকেও ধন্যবাদ। বিশ্বকাপের রেসপন্সগুলো না দেখলে আমি বিশ্বাস করতে পারতাম না। আমি বাফুফে ও নারী ফুটবলের পক্ষ থেকে কালবেলাকে ধন্যবাদ জানাই।’

ছাপা পত্রিকা সম্পর্কে ভিন্ন ধারণা ছিল সাফজয়ী দলের ফুটবলার সানজিদার। তবে কালবেলা কুইজে পাঠকদের সাড়া দেখে তিনি বলেন, ‘এখন তো আমাদের বিশ্বাস ছিল মানুষ সোশ্যাল মিডিয়ার কারণে ছাপা পত্রিকা পড়ে না। কিন্তু কালবেলায় এসে ধারণা বদলে গেছে। কুইজে অংশগ্রহণ দেখে মনে হলো, এত মানুষ পত্রিকা পড়ে। তাতে আমি অবাক হয়েছি। এক মাসে এত ভালো সাড়া পেয়েছে তারা, আশা করি আরও ভালো করবে।’

এ ছাড়া কালবেলার এমন আয়োজনে মুগ্ধ হয়ে কৃষ্ণা বলেন, ‘কালবেলাকে ধন্যবাদ আমাদের আমন্ত্রণ করার জন্য। নতুন হিসেবে তারা অনেকটাই এগিয়ে গেছে, আমি চাই তারা আরও ভালো করবে। এটা খুব ভালো লাগে যে, তারা আমাদের নিয়ে লেখালেখি করে। আজকে আমি কৃষ্ণা হয়ে ওঠার পেছনে সংবাদমাধ্যম একটা ভূমিকা রেখেছে।’

ঢাকা/আমিনুল

সম্পর্কিত বিষয়:

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়