ঢাকা     সোমবার   ০৪ মার্চ ২০২৪ ||  ফাল্গুন ২০ ১৪৩০

গাজীপুর জেলা বিএনপি কার্যালয়ের সামনে কাপড় ও ফলের দোকান 

নিজস্ব প্রতিবেদক, গাজীপুর || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৬:৪৬, ১৯ নভেম্বর ২০২৩   আপডেট: ১৭:১৩, ১৯ নভেম্বর ২০২৩
গাজীপুর জেলা বিএনপি কার্যালয়ের সামনে কাপড় ও ফলের দোকান 

গ্রেপ্তার আতঙ্কে নেতাকর্মীরা না আসায় বিএনপি কার্যালয়ের সামনে ফল ও কাপড়ের দোকান খুলেছেন ব্যবসায়ীরা

গাজীপুর শহরের প্রাণকেন্দ্র জয়দেবপুরে অবস্থিত গাজীপুর জেলা বিএনপির কার্যালয়। চলমান আন্দোলন ও বিভিন্ন মামলায় গ্রেপ্তার আতঙ্কে কার্যালয়ে আসেন না দলটির নেতাকর্মীরা। বর্তমানে ওই কার্যালয়ের সামনে বসছে ফল ও শীতের কাপড়ের দোকান।

গত কিছুদিন ধরেই নির্বাচনের তাফশিল বাতিলসহ বিভিন্ন দাবিতে হরতাল-অবরোধ দিয়ে আন্দোলন করছে বিএনপি ও সমমনা দলের নেতাকর্মীরা। রোববার (১৯ নভেম্বর) সকাল থেকে চলছে বিএনপির ডাকা ৪৮ ঘণ্টার হরতাল। হরতাল অবরোধে বিভিন্ন যানবাহন ভাঙচুর ও অগ্নিসংযোগের মামলায় ইতোমধ্যে অনেক নেতাকর্মী গ্রেপ্তার হয়েছেন। এছাড়া, বাকিরা রয়েছেন গ্রেপ্তার আতঙ্কে। ফলে দীর্ঘদিন ধরেই কার্যালয়ে দেখা যায়নি বিএনপি ও তাদের অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীদের। এরফলে, বিএনপির জেলা কার্যালয়ের সামনের অংশে বসেছে কয়েকটি কাপড়ের ও ফলের দোকান। 

বিএনপির একাধিক নেতাকর্মী জানান, আমরা দলীয় নির্দেশে এখন সরকার পতনের আন্দোলন নিয়ে ব্যস্ত। আমাদের নেতাকর্মীদের অনেকেই গ্রেপ্তার হয়েছেন। তবুও আমরা নিজেদের অবস্থান থেকে আন্দোলন করে যাচ্ছি। বিভিন্ন থানায় নামসহ নাম না জানা হাজারো নেতাকর্মীর নামে মামলা হয়েছে। যার কারণে দলীয় কার্যালয়ে নেতাকর্মীদের উপস্থিতি সেভাবে নেই। 

ফলের দোকানদার রফিকুল ও কাপড়ের দোকানদার গোলাম রব্বানী বলেন, যায়গাটা ফাঁকা থাকে। বিএনপির নেতাকর্মীরাও তাদের কার্যালয়ে তেমন আসেন না। এজন্য দলটির এক প্রয়াত নেতার মৌখিক অনুমতি নিয়ে এখানে দোকান বসিয়েছি। এজন্য আমাদের কোনো টাকা দিতে হয় না। নেতাকর্মীরা প্রতিদিন আসলে এবং প্রোগ্রাম হলে আমরা এখান থেকে সরে যাবো।

গাজীপুর জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক শাহ রিয়াজুল হান্নান বলেন, আপনারা জানেন দেশব্যাপী আমাদের হরতাল চলছে। গাজীপুরেও হরতাল পালন হচ্ছে। নেতাকর্মীরা মশাল মিছিলসহ বিভিন্ন কার্যক্রম অব্যহত রেখেছেন। দলীয় কার্যক্রম ও অনন্য কারণে কার্যালয়ে তেমন যাওয়া হচ্ছে না। এজন্য হয়তো কার্যালয়ের সামনের জায়গায় দোকান বসতে পারে। আমরা তাদের বসতে বলিনি। জায়গা ফাঁকা দেখে হয়তো তারা সেখানে বসেছে।

রেজাউল/মাসুদ

সম্পর্কিত বিষয়:

ঘটনাপ্রবাহ

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়