ঢাকা     মঙ্গলবার   ২১ মে ২০২৪ ||  জ্যৈষ্ঠ ৭ ১৪৩১

পাশে দাঁড়ালেন পরীমনি, আবেগাপ্লুত সেই অভিনেত্রী

রাহাত সাইফুল || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ১৯:২৭, ৫ জুলাই ২০২১   আপডেট: ২০:১৫, ৫ জুলাই ২০২১
পাশে দাঁড়ালেন পরীমনি, আবেগাপ্লুত সেই অভিনেত্রী

ঢাকাই চলচ্চিত্রের গ্ল্যামার-গার্ল পরীমনির সামাজিক কর্মকাণ্ডে খ্যাতি রয়েছে। বিভিন্ন সময় অনাথ শিশুদের পাশে দাঁড়ানো, অসচ্ছল শিল্পীদের নীরবে সহযোগিতা কিংবা তাদের জন্য এফডিসিতে কোরবানি দিতে তাকে দেখা গেছে। এরই ধারাবাহিকতায় এই নায়িকা এবার সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন অভিনেত্রী ভুলু বারীর দিকে। করোনাকালে কাজের অভাবে তিনি অসহায় অবস্থায় দিন কাটাচ্ছিলেন।

রাইজিংবিডিতে ‘রুপালি পর্দার আড়ালে ভুলু বারীর অন্ধকার জীবন’ শিরোনামে একটি মানবিক প্রতিবেদন প্রকাশ হয়। মর্মস্পর্শী এই প্রতিবেদন পরীমনির নজরে এলে তিনি ভুলু বারীর সঙ্গে যোগাযোগ করেন। ভুলু বারী বিষয়টি উল্লেখ করে এই প্রতিবেদককে বিস্মিত কণ্ঠে বলেন, ‘পরীমনি আমাকে ফোন করেছে- প্রথমে ভাবতেই পারিনি! আমি অবাক হয়েছি! আমার খোঁজখবর জানতে চাইল; বললাম। এরপর দেখি আমার বিকাশে দশ হাজার টাকা পাঠিয়ে দিয়েছে। বলল প্রয়োজন হলে আমি যেন ফোন দেই।’ 
‘রানা প্লাজা’য় আমি পরীমনির সঙ্গে অভিনয় করেছি। প্রতি বছর এফডিসিতে সে কোরবানি দেয়। আমাদের জন্য সুযোগ পেলেই কিছু করে। এই দুঃসময়ে তার উপকার কোনোদিন ভুলবো না। তার জন্য অনেক দোয়া রইল। করোনার এই সময়ে অন্তত দু’মুঠো খাবারের জন্য কারো কাছে হাত পাততে হবে না।’ বাষ্পরুদ্ধ কণ্ঠে বলেন ভুলু বারী।

বিষয়টি জানতে চাইলে পরীমনি এড়িয়ে যান। বলেন, ‘এফডিসি আমার পরিবার। করোনাকালে পরিবারের লোকজনের খবর নিতেই পারি- জাস্ট এটুকুই।’ 

করোনার ঊর্ধ্বমুখি সংক্রমণ ঠেকাতে কঠোর লকডাউন, চলচ্চিত্রের শুটিং বন্ধ ইত্যাদি কারণে ভীষণ অভাব-অনটনে দিন কাটাচ্ছেন অভিনেত্রী ভুলু বারী। তিনি বাংলাদেশের প্রথম সবাক চলচ্চিত্র ‘মুখ ও মুখোশ’-এর অভিনেত্রী বিলকিস বারীর মেয়ে।
 

ঢাকা/তারা

আরো পড়ুন  



সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়