Risingbd Online Bangla News Portal

ঢাকা     শনিবার   ২৪ জুলাই ২০২১ ||  শ্রাবণ ৯ ১৪২৮ ||  ১২ জিলহজ ১৪৪২

মার্কিন নির্বাচন: চূড়ান্ত ফলাফলের জন্য অপেক্ষা করতে হবে কয়েকদিন

নিউ ইয়র্ক প্রতিনিধি || রাইজিংবিডি.কম

প্রকাশিত: ০৬:৪১, ৪ নভেম্বর ২০২০   আপডেট: ১২:৫৪, ৪ নভেম্বর ২০২০
মার্কিন নির্বাচন: চূড়ান্ত ফলাফলের জন্য অপেক্ষা করতে হবে কয়েকদিন

যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন টাইমজোন অনুযায়ী রাত ৮টায় বন্ধ হবে ভোটগ্রহণ। কে হচ্ছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন রিপাবলিকান প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প নাকি ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেন।

ফলাফল জানতে অপেক্ষা করতে হবে ভোটগ্রহণ শেষ হওয়ার পর কয়েকদিন। এমনকি কয়েক সপ্তাহ পর্যন্ত লেগে যেতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

করোনাভাইরাস পরিস্থিতির কারণে প্রায় ১০ কোটি ভোটার আগাম ভোট দিয়েছে। সে কারণেই এমন অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। ফলে সব ভোট গণনা শেষ হতে অনেক দেরি হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

এছাড়া বিভিন্ন অঙ্গরাজ্যের আলাদা সময়ে ভোটগ্রহণ শেষ ও গণনা করার নিয়মও কাজ করছে। ফলে গণনার কাজে অনেকটাই সময় লেগে যেতে পারে বলে রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা ধারনা করছেন।

সাধারণত নির্বাচনের রাতে সব ভোট গণনা শেষ না হলেও কে বিজয়ী হতে যাচ্ছেন, সে সম্পর্কে একটা ধারণা পাওয়া যায়। কিন্তু এবার তার ব্যতিক্রম হতে পারে।

আমেরিকাতে বেশি ভোট পাওয়া মানেই প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওয়া নয়। তাকে আসলে বেশি রাজ্যের ভোট পেতে হয়। জনসংখ্যার বিচারে প্রতিটি রাজ্যের জন্য নির্দিষ্ট ইলেকটোরাল ভোট পান ওই রাজ্যের বিজয়ী প্রার্থী। হোয়াইট হাউসে যেতে হলে প্রার্থীকে কমপক্ষে ২৭০টি ইলেকটোরাল ভোট পেতে হয়।

২০১৬ সালের নির্বাচনের রাতেই ডোনাল্ড ট্রাম্প বিজয়ী বলে জানা গিয়েছিল। কারণ উইসকনসিন অঙ্গরাজ্যের ভোট মিলে তার ২৭০ ইলেকটোরাল ভোট নিশ্চিত হয়ে যায়।

করোনাভাইরাস মহামারীর কারণে এ বছর অনেক বেশি মানুষ ডাকযোগে অথবা ব্যক্তিগতভাবে আগাম ভোট দিয়েছেন। ডাকে পাওয়া ভোট গণনা করতে সাধারণত বেশি সময় লাগে। কারণ সেগুলোর স্বাক্ষর, ঠিকানাসহ নানা যাচাই-বাছাই করতে অনেক ধাপ পার হতে হয়।

ফ্লোরিডা ও ওহাইওর মতো কয়েকটি রাজ্য এসব প্রক্রিয়া নির্বাচনের সপ্তাহ খানেক আগে থেকে শুরু করে, যাতে ভোটগুলো গণনার কাজ শেষ হয়ে যায়। এসব রাজ্যে নির্বাচনের রাতেই বিজয়ীর নাম ঘোষণা করা সম্ভব হতে পারে, যদিও সেটা নির্ভর করে প্রতিদ্বন্দ্বিতা কতটা জোরালো হয়, তার ওপরে।

কিন্তু পেনসিলভানিয়া ও উইসকনসিনের মতো অনেক রাজ্যে নির্বাচনের দিনের আগে আগাম ভোটের গণনা করা হয় না। এই সমস্ত রাজ্য বিশেষভাবে গুরুত্বপূর্ণ। সেখানে ভোট গণনা শেষ হতে কয়েকদিন পর্যন্ত লেগে যেতে পারে। যেসব রাজ্যে নির্বাচনের দিন ডাকে পাওয়া ভোট গণনা করা হবে সেখানে প্রাথমিক তথ্য ডোনাল্ড ট্রাম্পের পক্ষে যেতে পারে।

কারণ বেশিরভাগ রিপাবলিকান নির্বাচনের দিন ভোট দেবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। এসব ভোট দ্রুত গণনা করা সম্ভব। যেসব রাজ্য আগে থেকেই আগাম ভোট গণনা সম্পন্ন করে রেখেছে তাদের প্রাথমিক ফলাফল জো বাইডেনের পক্ষে যেতে পারে। কারণ বেশিরভাগ রেজিস্টার্ড ডেমোক্র্যাট আগাম ভোট দিয়েছেন।

আর এই কারণে নির্বাচনী আধিকারিকরা সতর্ক করে দিয়েছেন, আগাম ফলাফলে পুরো চিত্রটি নাও বেরিয়ে আসতে পারে। ধারণা করা হচ্ছে, ২০১৬ সালের নির্বাচনের তুলনায় এবার দ্বিগুণ পোস্টাল ভোট পড়েছে। ভোট গণনা ও ফল প্রকাশে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিটি অঙ্গরাজ্যেই আলাদা প্রক্রিয়া রয়েছে।

নয়টি অঙ্গরাজ্যের ভোট গ্রহণের শেষ সময় ও গণনার সময় ভিন্ন।

ফ্লোরিডা: এ রাজ্যে ২৪ সেপ্টেম্বর থেকে নির্বাচন পূর্ব বা আগাম ভোট গ্রহণ শুরু হয়। নির্বাচনের দিন এসব ভোটের গণনা শুরু হয়। ডাকে নির্বাচনের দিন পর্যন্ত ভোট দেওয়া গৃহীত হয়। এদিন রাত ৮টায় ভোটগ্রহণ শেষ হয়। নির্বাচনের রাতে ভোট গণনা শেষ করা হয়।

জর্জিয়া: এখানে ১৯ অক্টোবর থেকে আগাম ভোটগ্রহণ শুরু হয়। নির্বাচনের দিন সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ চলে। একই দিন আগাম ব্যালট গণনা করা হয়। এখানে ৪ নভেম্বর পর্যন্ত ডাকে ভোট দেওয়া যাবে।

টেক্সাস: এ অঙ্গরাজ্যের বড় বড় শহরে ২২ অক্টোবর ভোটগ্রহণ শুরু হয়। ৩০ অক্টোবর থেকে আগাম ভোট গণনা শুরু হয়েছে। ডাকে ব্যালট পৌঁছানোর শেষ দিন ৪ নভেম্বর। অন্যদিকে ছোট ছোট শহরে ৩০ অক্টোবর থেকে ডাকে ভোটগ্রহণ শুরু হয়। এগুলোর গণনা নির্বাচনের দিন করা হয়।

নর্থ ক্যারোলিনা: নর্থ ক্যারোলিনায় নির্বাচন পূর্ব ভোটের প্রক্রিয়া ২৯ সেপ্টেম্বর শুরু হয়। নির্বাচনের দিন গণনা করা হয়। ভোটগ্রহণ বন্ধ হয় একই দিন সন্ধ্যায়।

পেনসিলভানিয়ায়: এখানে ডাকে ব্যালট পৌঁছানোর শেষ দিন ৬ নভেম্বর। নির্বাচনের দিন রাত ৮টায় ভোটগ্রহণ শেষ হয়। এখানকার অনেক শহরে নির্বাচনের দিন ডাকে পাঠানো ব্যালট গণনা করা হয় না।

ওহাইও: এ অঙ্গরাজ্যে নির্বাচন পূর্ব ভোটের প্রক্রিয়া ৬ অক্টোবর শুরু হয়। নির্বাচনের দিন ভোট গণনা করা হয়। এখানকার অনেক শহরে আগাম ভোট আগেই প্রকাশ করা হয়।

অ্যারিজোনা: এ অঙ্গরাজ্যে নির্বাচন পূর্ব ভোটগ্রহণ ২০ অক্টোবর শুরু হয়। নির্বাচনের দিন রাত ৯টায় ভোটগ্রহণ শেষ হয়। এখানে প্রথমে আগাম ভোটের ফল প্রকাশ করা হয়। পাশাপাশি ভোটগ্রহণ শেষ হওয়ার ১ ঘণ্টা পর ওইদিনের ভোট গণনা শুরু হয়।

উইসকনসিন: এ অঙ্গরাজ্যে নির্বাচনের দিন রাত ৯টা পর্যন্ত ভোট কেন্দ্র খোলা থাকে। নির্বাচনের দিন সব ধরনের ভোট গণনা শুরু হয় এবং পরের দিন শেষ হয়।

মিশিগান: এ অঙ্গরাজ্যের কিছু বড় শহরে ২ নভেম্বর থেকে ভোট গ্রহণের কার্যক্রম শুরু হয়। তবে সারা দেশে নির্বাচনের দিনও ভোট গ্রহণ ও গণনা করা হয়। এদিন রাত ৯টা পর্যন্ত ভোট কেন্দ্র খোলা থাকে। ৬ নভেম্বরের মধ্যে ভোট গণনা শেষ করা হবে।

ছাবেদ সাথী/নাসিম

ঘটনাপ্রবাহ

সর্বশেষ

পাঠকপ্রিয়